Monday , August 21 2017
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
Home / লাইফস্টাইল / বৃষ্টির দিনে সাজগোজের বিশেষ টিপস

বৃষ্টির দিনে সাজগোজের বিশেষ টিপস

অস্বস্তি গরমের পর বর্ষাকালে ঝির-ঝির বৃষ্টি। সবার কাছে তা ভালো লাগাটাই স্বাভাবিক। বর্ষাকালে প্রকৃতির এই বিচিত্র খেলায় জীবনকে আরও রঙিন করতে পোশাকেও আনতে পারেন বৈচিত্র্য।

বৃষ্টির দিনে সাজগোজ করে বাইরে বেরিয়ে হঠাৎ বৃষ্টির ঝাপটায় যেন পুরোটাই ম্লান না হয়, সে দিকেও খেয়াল রাখতে হবে। সকাল বেলা বাসা থেকে হয়তো বের হয়েছেন রোদ দেখে, কিন্তু বাইরে বের হওয়ার পর শুরু হলো বৃষ্টি। তাই সাজের ক্ষেত্রে বৃষ্টির কথা মাথায় রেখে আপনার সাজ হওয়া চাই।

বৃষ্টির দিনে কেমন হবে সাজগোজ?

১) বর্ষার দিনে ঘরের বাইরে রোদ-বৃষ্টির খেলা, তাই সাজের ক্ষেত্রে উপকরণটি যেন অবশ্যই পানিরোধক হয়। এ সময়ে দিনের বেলা গরমে গাঢ় সাজ যেমন মানানসই নয়, তেমনি অন্যদের চোখেও তা দৃষ্টিকটু লাগে। তাই সব মিলিয়ে সাজসজ্জায় স্নিগ্ধভাব থাকা চাই। এ জন্য হালকা মেকআপই ভালো।

২) দিনের বেলায় ফাউন্ডেশন না লাগিয়ে হালকা কোনো ফেইস পাউডার লাগানো যেতে পারে। এতে ত্বক অনেক বেশি মসৃণ ও সুন্দর দেখাবে। আবার ফাউন্ডেশন ব্যবহার করতে চাইলে, ম্যাটিফায়িং ফাউন্ডেশন লাগানো উচিত। এতে ত্বক কম ঘামবে এবং কম তৈলাক্ত হবে।

৩) পোশাকের সঙ্গে মেকআপে মিল রেখে হালকা বাদামি রংয়ের আইশ্যাডো লাগিয়ে নিলে অনেক বেশি ন্যাচারাল বা স্বাভাবিক দেখাবে। তবে রাতের বেলায় একটু গাঢ় করেই চোখ দুটো সাজালে ভালো। সে ক্ষেত্রে মেরুন, কফি, সবুজ, নীলচে রংয়ের শেইডগুলো ব্যবহার করা যেতে পারে।

৪) যারা একটু বেশি রঙিনভাবে সাজতে চান তারা পোশাকের রংয়ের বিপরীত রংও বেছে নিতে পারেন। এটি চোখের কাজল, শ্যাডো, লিপস্টিক সব ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। দিনের বেলা ব্লাশন এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন। পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে কপালে টিপ দিতে পারেন।

৫) এ সময় অবশ্যই ওয়াটারপ্রুফ মাশকারা এবং পেনসিল আইলাইনার ব্যবহার করুন। দিনের সাজে চোখের নিচের পাতায় আইলাইনার অথবা মাশকারা না লাগানোই ভালো। পোশাকের রংয়ের সঙ্গে মিলিয়ে বেছে নিতে পারেন রঙিন কাজল। নীল, সবুজ, গোলাপি, লাল কাজলের রেখা টেনে নিতে পারেন চোখের কোণে।

৬) বর্ষায় পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে জর্জেট,শিফন টাইপের পোশাক নির্বাচন করা উচিৎ। এতে বৃষ্টিতে ভিজে গেলেও তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাবে।

৭) বর্ষার সাজে স্নিগ্ধ ভাব থাকা চাই। এসময় হালকা মেকআপ নেওয়া ভালো। চুলটা বাঁধা থাকলেই বরং সুবিধা হবে। হাতে খোঁপা করে তাতে গুঁজে দেওয়া যেতে পারে কদম,বেলি বা চাঁপা ফুল। কপালে গাঢ় রঙের গোল টিপ পরলে দেখতে দারুণ লাগবে।

৮) বর্ষায় প্রকৃতি যেমন সেজে ওঠে তেমনি তার সঙ্গে মেতে ওঠে প্রকৃতি প্রিয় মানুষ। প্রকৃতির সঙ্গে মিলিয়ে মেয়েরা গাঢ় নীল সবুজ রঙের পোশাক পড়ে। ভাদ্রের গরমে পাতলা কোটা শাড়ি এড়িয়ে চলুন। এখন মাঝে মাঝেই বৃষ্টি হয়। তাই সাদা কাপড় যেমন বৃষ্টির দিনে মানানসই নয়, কালো কাপড়ও তেমনি পরা উচিত নয়। কারণ কালো কাপড় ভিজে গেলে ছোপছোপ দাগ হতে পারে।

৯) কামিজ পরুন একটু খাটো। কাদায় ময়লা হওয়ার আশঙ্কা যাতে না থাকে। আর সালোয়ারও আঁটসাঁট হওয়া চাই। তবে পোশাক যাই পরুন না কেন, ছাতাকে সঙ্গী করতে ভুলবেন না। তাহলে হঠাৎ বৃষ্টির ছাঁট আপনার সাজ পোশাক নষ্ট করতে পারবে না একদমই।

Check Also

সন্তানকে যে কারণে মারবেন না

দু-চারটা চড়-থাপ্পড় না খেলে নাকি সন্তান মানুষ হয় না। এমন কথা প্রচলিত আছে। কিন্তু অতিরিক্ত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *